আস্ক টু আন্স প্লাটফর্মে আপনাকে স্বাগতম, সমস্যার সমাধান খুঁজতে প্রশ্ন করুন।।
0 টি ভোট
85 বার প্রদর্শিত
"বাংলা সাহিত্য" বিভাগে করেছেন (525 পয়েন্ট)

সৈয়দ মুজতবা আলী জার্মানির কোন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডক্টরেট ডিগ্রি লাভ করেন?

বাসার সঙ্গে চাকরও পেলুম বলতে কী বোঝানো হয়েছে?

1 উত্তর

0 টি ভোট
করেছেন (525 পয়েন্ট)

উদ্দীপকঃ-

image

আকাশ থেকে বরফ পড়ছে। আর তার মাঝে এক শিশু আপন মনে হাঁটছে।এই যেন আফগানিস্তানের নিত্য সৌন্দর্য।।

ক) সৈয়দ মুজতবা আলী জার্মানির কোন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডক্টরেট ডিগ্রি লাভ করেন?

খ) বাসার সঙ্গে চাকরও পেলুম বলতে কী বোঝানো হয়েছে?

গ) উদ্দীপকের চিত্রটি 'প্রবাস বন্ধু' ভ্রমণকাহিনির কোন দিকটি ফুটিয়ে তোলা হয়েছে? ব্যাখ্যা কর।

ঘ) 'প্রাকৃতিক সৌন্দর্য দ্বারা বেষ্টিত এক অপূর্ব সুন্দর দেশ আফগানিস্তান'- মন্তব্যটি উদ্দীপক ও 'প্রবাস বন্ধু' ভ্রমণকাহিনির আলোকে বিশ্লেষণ কর।

উত্তরঃ-

ক) সৈয়দ মুজতবা আলী বন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডক্টরেট ডিগ্রি লাভ করেন।

খ) বাসার সঙ্গে চাকরও পেলুম বলতে লেখক যে আফগানিস্তানে থাকার জায়গা ও নিজের দেখভাল করার জন্য আবদুর রহমানকে পেয়েছিলেন, সে বিষয়টি বোঝানো হয়েছে।লেখক কর্মসূত্রে ও ভ্রমণের জন্য আফগানিস্তানে গিয়েছিলেন। এখানে তাঁকে থাকতে দেওয়া হয়েছিল কাবুল থেকে আড়াই মাইল দূরে খাজামোল্লা গ্রামে। এখানে দেখাশোনা করা ও তাঁর রান্নার জন্য আবদুর রহমানের ওপর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। মূলত থাকার জায়গা ও এক বিশ্বস্ত মানুষ পেয়ে লেখক উক্তিটি করেছেন।মূলকথাঃ- আফগানিস্তানে লেখকের থাকার জায়গা ও পরিচর্যাকারী পাওয়ার বিষয়টি বোঝানো হয়েছে।

গ) উদ্দীপকের চিত্রটি 'প্রবাস বন্ধু' ভ্রমণকাহিনির আফগানিস্তানের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের দিকটি ফুটিয়ে তোলে।প্রবাস বন্ধু ভ্রমণকাহিনিতে লেখক তাঁর আফগানিস্তান ভ্রমণের বাস্তব অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরেছেন। এখানে লেখক কর্মসূত্রে গেলেও এখানকার প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে অপরূপ মুগ্ধ হয়েছেন। বিশেষ করে পানশির বরফ পড়ার দৃশ্য ছিল অত্যন্ত মনোমুগ্ধকর। এ স্থানের পাহাড়, প্রকৃতি আর মাঝে তুষারপাতের দৃশ্যকে সত্যিই সৌন্দর্যপিপাসুদের মনে অন্য রকম আবেশ সৃষ্টি করে। তা ছাড়া এর মাঝে মানুষের চলাচল যেন সৌন্দর্যকে আরও বেশি প্রাণবন্ত করে তোলে।উদ্দীপকের চিত্রে আফগানিস্তানের সৌন্দর্য বিদ্যমান। এখানে চারদিকে অবিরাম তুষার পড়ছে। আর তার মাঝে দাঁড়িয়ে যেন তুষারের স্নেহ শরীরে মেখে নিচ্ছে। এত সুন্দর দৃশ্য যেন শুধু আফগানিস্তানেই দেখতে পাওয়া যায়। ভ্রমণকাহিনির বর্ণনায়ও আফগানিস্তানের অপরূপ তুষার পড়ার কথা তুলে ধরা হয়েছে। তাই বলা যায়, উদ্দীপকের চিত্রটি 'প্রবাস বন্ধু' ভ্রমণকাহিনির আফগানিস্তানের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের দিকটি ফুটিয়ে তোলে।মূলকথাঃ- উদ্দীপকের চিত্রে ও 'প্রবাস বন্ধু' ভ্রমণকাহিনিতে আফগানিস্তানের অপরূপ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের দিকটি ফুটে উঠেছে।

ঘ) প্রাকৃতিক সৌন্দর্য দ্বারা বেষ্টিত এক অপূর্ব সুন্দর দেশ আফগানিস্তান- মন্তব্যটি উদ্দীপক ও 'প্রবাস বন্ধু' ভ্রমণকাহিনিতে প্রাধান্য পেয়েছে।'প্রবাস বন্ধু' ভ্রমণকাহিনিতে লেখক তাঁর আফগানিস্তান ভ্রমণের বাস্তব অভিজ্ঞতার বর্ণনা দিয়েছেন। আফগানিস্তান প্রাকৃতিক ও ভৌগোলিকভাবে সত্যিই খুব সুন্দর দেশ। এ দেশের চারপাশ পাহাড়, পর্বত, নদ-নদী, সমুদ্র, মরুভূমি দ্বারা বেষ্টিত। শীতের সময় এখানে যেমন তুষার পড়ে, তেমনি গ্রীষ্মের সময় গরম পড়ে। তবে লেখকের চোখে সবকিছুকে ছাপিয়ে বড় হয়ে উঠেছে সৌন্দর্য। প্রকৃতি যেন এখানে অকৃপণ।আর সৌন্দর্যপিপাসুদের অন্তর তৃপ্ত করে উদারভাবে।উদ্দীপকের চিত্রে তুষারের মাঝে দাঁড়িয়ে আছে এক শিশু। চারদিকে পাহাড়-পর্বতে ঘেরা প্রকৃতির মাঝে দাঁড়িয়ে শিশুটি আপন মনে তুষার স্পর্শ করছে। এ তুষার সৌন্দর্য যেন তার আকর্ষণ বাড়িয়ে দিচ্ছে খেলবার। এরূপ অপরূপ সৌন্দর্য আফগানিস্তানের নিত্য চিত্র।প্রাকৃতিক সৌন্দর্য দ্বারা বেষ্টিত এক অপরূপ সৌন্দর্যের দেশ আফগানিস্তান। এ দেশের মাঝে রয়েছে পাহাড়, পর্বত, নদী, সমুদ্র আর প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের অপরূপ উপাদান তুষারের পড়ার দৃশ্য; যা দেখতে হাজারো সৌন্দর্যপিপাসু মানুষ ছুটে যায় আফগানিস্তানে।

মূলকথাঃ- প্রকৃতির অপরূপ সৌন্দর্য দ্বারা বেষ্টিত দেশ আফগানিস্তান; যেখানে সৌন্দর্যপিপাসু দর্শনার্থীরা ছুটে যায়।

উদ্দীপকঃ-

বাংলার মুখ আমি দেখিয়াছি, তাই আমি পৃথিবীর রূপ খুঁজিতে যাই না আর, অন্ধকারে জেগে উঠে ডুমুরের গাছে চেয়ে দেখি ছাতার মত বড়ো পাতাটির নিচে বসে আছে ভোরের দোয়েল পাখি- চারিদিকে চেয়ে দেখি পল্লবের স্তূপ জাম-বট-কাঁঠালের-হিজলের-অশ্বত্থের করে আছে চুপ।

) আবদুর রহমানের দেশের নাম কী?

খ) অল্প শোকে কাতর, অধিক শোকে পাথর- লেখকের এ উক্তির কারণ বুঝিয়ে লেখ।

গ) উদ্দীপকে 'প্রবাস বন্ধু' ভ্রমণকাহিনির কোন বিষয়টি প্রকাশ পেয়েছে? ব্যাখ্যা কর।

ঘ) 'বিষয়গত সাদৃশ্য থাকলেও উদ্দীপক ও 'প্রবাস বন্ধু' ভ্রমণকাহিনির মূলভাবে বৈসাদৃশ্য রয়েছে'। মন্তব্যটি যুক্তিসহ বিশ্লেষণ কর।

উত্তরঃ-

ক) আবদুর রহমানের দেশের নাম পানশির।

খ) একজনের জন্য আবদুর রহমানের রান্না করা খাদ্যের পরিমাণ দেখে লেখক স্তব্ধ হয়ে এ উক্তি করেছেন। আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের সন্নিকটে খাজামোল্লা গ্রামে বসবাসের সময় আবদুর রহমান নামের একজন লেখকের দেখভালের দায়িত্বে ছিলেন। আবদুর রহমান লেখকের জন্য যে রান্না করেছে, তার পরিমাণ তিনজনে খাওয়ার মতো হয়, তবে তাকে ধমক দেওয়া যায়, কিন্তু ছয়জনের পরিমাণ খাদ্য পরিবেশন করেও যদি বলা হয়, রান্নাঘরে আরও আছে, তখন আর কি করার থাকে? এ জন্যই লেখক বলেছেন, অল্প শোকে কাতর, অধিক শোকে পাথর।

মূলকথাঃ- একজনের জন্য ছ'জনের পরিমাণ খাবার দেখে লেখক এ কথা বলেছেন।

গ) উদ্দীপকে 'প্রবাস বন্ধু' ভ্রমণকাহিনির প্রাকৃতিক বৈচিত্র্যের বিষয়টি প্রকাশ পেয়েছে।উদ্দীপকে বাংলার প্রাকৃতিক বৈচিত্র্য ও সৌন্দর্যের বিষয়টি ফুটে উঠেছে। বাংলার পথে-প্রান্তরে মাঠে-ঘাটে যে সৌন্দর্য সুধা ছড়িয়ে রয়েছে, তা কবির চিত্তকে মুগ্ধ করে। এই বিচিত্র প্রাকৃতিক সৌন্দর্যই বাংলার অমূল্য সম্পদ। পৃথিবীর আর কোথাও এমন সুন্দর প্রকৃতি ও পরিবেশ, ঐতিহ্য ও ঐশ্বর্য আছে বলে কবি বিশ্বাস করেন না।'প্রবাস বন্ধু' ভ্রমণকাহিনিতে আফগানিস্তানের প্রাকৃতিক চিত্র অঙ্কিত হয়েছে। আফগানিস্তানের প্রস্তরভূমি এবং একই সঙ্গে নিকট প্রতিবেশী এই জনপদের বরফ-শীতল জলবায়ু আকর্ষণীয়। বিশেষ করে আবদুর রহমানের দেশ আফগানিস্তানের পানশির অঞ্চলের প্রাকৃতিক বৈচিত্র্যে মুগ্ধ হয়ে লেখক সেখানে শীতকাল কাটানোর ইচ্ছা পোষণ করেছেন। কাজেই উদ্দীপকে 'প্রবাস বন্ধু' ভ্রমণকাহিনির এ বিষয়টিই প্রকাশ পেয়েছে।

মূলকথাঃ- উদ্দীপকে প্রবাস বন্ধু ভ্রমণকাহিনির প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের বিষয়টি প্রকাশ পেয়েছে।

ঘ) বিষয়গত সাদৃশ্য থাকলেও উদ্দীপক ও 'প্রবাস বন্ধু' ভ্রমণকাহিনির মূলভাবে বৈসাদৃশ্য রয়েছে- মন্তব্যটি যৌক্তিক ও যথার্থ।'প্রবাস বন্ধু' ভ্রমণকাহিনিতে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের পাশাপাশি প্রধান হয়ে উঠেছে আফগানিস্তানের মানুষের জীবনাচরণ। সেখানকার মানুষ ও তাদের সহজ-সরল জীবনাচরণ, বিচিত্র খাদ্য ইত্যাদি হাস্যরসাত্মকভাবে এই রচনায় ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। আফগানিস্তানি আবদুর রহমানের চরিত্রে ফুটে উঠেছে স্বদেশপ্রেম ও অতিথিপরাণয়তা। অতিথির প্রতি তার আন্তরিকতার কোনো অভাব নেই।উদ্দীপকে জন্মভূমি বাংলাদেশকে কবি তার সমগ্র মনপ্রাণ দিয়ে ভালোবেসেছেন। এই ভালোবাসা এমনই পরিপূর্ণ যে তিনি পৃথিবীর আর কোথাও বাংলাদেশের প্রকৃতি ও পরিবেশ, ঐতিহ্য ও ঐশ্বর্যের কোনো বিকল্প আছে বলে বিশ্বাস করেন না। বাংলার পথে-প্রান্তরে মাঠঘাটে যে সৌন্দর্যসুধা ছড়িয়ে আছে, তা অতুলনীয়। এই বিচিত্র সৌন্দর্যই বাংলার সম্পদ।উপর্যুক্ত আলোচনা থেকে দেখা যায়, 'প্রবাস বন্ধু' ভ্রমণকাহিনিতে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য, স্বদেশপ্রেম ও মানুষের সহজ-সরল জীবনাচরণের চিত্র ফুটে উঠেছে। উদ্দীপকে শুধু প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের পরিচয় পাওয়া যায়। কাজেই বিষয়গত সাদৃশ্য থাকলেও উদ্দীপক ও 'প্রবাস বন্ধু' ভ্রমণকাহিনির মূলভাবে বৈসাদৃশ্য রয়েছে- মন্তব্যটি যৌক্তিক ও যথার্থ।

মূলকথাঃ-বিষয়গত সাদৃশ্য থাকলেও উদ্দীপক ও 'প্রবাস বন্ধু' ভ্রমণকাহিনির মূলভাবে বৈসাদৃশ্য রয়েছে- মানুষের জীবনাচরণের দিক থেকে মন্তব্যটি যৌক্তিক ও যথার্থ।

299 টি প্রশ্ন

296 টি উত্তর

1 মন্তব্য

1.6k জন সদস্য

2 জন অনলাইনে আছেন
1 জন সদস্য 1 জন অতিথি
অনলাইনে থাকা সদস্যরা
আজ ভিজিট : 4729 বার
গতকাল ভিজিট : 4841 বার
সর্বমোট ভিজিট : 294567 বার

Ask2Ans এ আপনাকে সুস্বাগতম, এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং Ask2An অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পাবেন। এখান থেকে যেমন আপনি জ্ঞান অর্জন করতে পারবেন তেমনিই এটি ব্যবহার করে আপনার জ্ঞান দিয়ে অপরকে সহায়তা করতে পারবেন। জ্ঞানার্জনের অন্যতম বাংলা প্লাটফর্ম হলো Ask2Ans, আমাদের সাথে থাকুন জ্ঞানঅর্জন করুন।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

0 টি ভোট
1 উত্তর 32 বার প্রদর্শিত
16 ডিসেম্বর 2023 "বাংলা সাহিত্য" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Hasib (569 পয়েন্ট)
0 টি ভোট
1 উত্তর 134 বার প্রদর্শিত
14 ফেব্রুয়ারি "পড়াশোনা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Admin (525 পয়েন্ট)
0 টি ভোট
1 উত্তর 120 বার প্রদর্শিত
26 জানুয়ারি "ইসলাম শিক্ষা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Admin (525 পয়েন্ট)
0 টি ভোট
1 উত্তর 93 বার প্রদর্শিত
21 জানুয়ারি "ইসলাম শিক্ষা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Admin (525 পয়েন্ট)
0 টি ভোট
1 উত্তর 32 বার প্রদর্শিত
02 জানুয়ারি "পড়াশোনা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Admin (525 পয়েন্ট)
...