আস্ক টু আন্স প্লাটফর্মে আপনাকে স্বাগতম, সমস্যার সমাধান খুঁজতে প্রশ্ন করুন।।
0 টি ভোট
62 বার প্রদর্শিত
"পড়াশোনা" বিভাগে করেছেন (525 পয়েন্ট)

স্যাটেলাইট কী?

রোবট একটি প্রোগ্রাম কন্ট্রোল ডিভাইস- ব্যাখ্যা কর।

ক্রায়োপ্রোব কী ব্যাখ্যা কর।

1 উত্তর

0 টি ভোট
করেছেন (525 পয়েন্ট)

উদ্দীপকঃ-

=> অভি লন্ডনের রয়েল হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি হন। ডাক্তার এক ধরনের মিনিম্যালি ইনহেন্সিভ পদ্ধতিতে ক্রায়োপ্রোেব ব্যবহারের মাধ্যমে তাঁর চিকিৎসা করলেন এবং বর্তমানে তিনি সম্পূর্ণরূপে সুস্থ।'

ক. স্যাটেলাইট কী?

খ. ক্রায়োপ্রোব কী ব্যাখ্যা কর।

গ. উদ্দীপকে উল্লিখিত চিকিৎসা পদ্ধতিতে কীভাবে জীবাণু ধ্বংস করা হয়? ব্যাখ্যা কর।

ঘ. উদ্দীপকের চিকিৎসা পদ্ধতি বিশেষ কিছু রোগীদের জন্য উপযোগী - বিশ্লেষণ কর।


প্রশ্নের উত্তরঃ-


ক) স্যাটেলাইট হলো কৃত্রিম উপগ্রহ, যা ভূ-পৃষ্ঠ হতে ৩৪০০০ কি. মি. উর্ধ্বাকাশে স্থাপন করা হয় ফলে পৃথিবীর গতির সমান গতিতে পরিভ্রমণ করতে পারে।


খ) অস্বাভাবিক বা রোগাক্রান্ত টিস্যুকে অত্যধিক ঠাণ্ডা প্রয়োগ করে ক্রায়োসার্জারি বা ক্রায়োথেরাপি দেওয়া হয়। এ পদ্ধতিতে একটি নল ব্যবহার করে তরল নাইট্রোজেন, কার্বনডাই অক্সাইড, আর্গন ও ডাই মিথাইল ইথার ব্যবহার করা হয়। এই নলটিকে ক্রায়োপ্রোব বলে।


গ) উদ্দীপকে মিনিম্যালি ইনহেন্সিভ পদ্ধতিতে ক্রায়োপ্রোব ব্যবহারের মাধ্যমে দেওয়া চিকিৎসা পদ্ধতি হলো ক্রায়োসার্জারি। ক্রায়োসার্জারি এক ধরনের চিকিৎসা পদ্ধতি, যা অত্যধিক শীতল তাপমাত্রা প্রয়োগের মাধ্যমে ত্বকের অস্বাভাবিক বা অপ্রত্যাশিত রোগাক্রান্ত টিস্যু/ত্বক কোষ ধ্বংস করার কাজে ব্যবহৃত হয়। এক্ষেত্রে অত্যন্ত শীতল তাপমাত্রায় কোষকলার অভ্যন্তরে বলের আকৃতিবিশিষ্ট ছোট ছোট বরফের কৃষ্টাল তৈরি হয়ে আক্রান্ত কোষগুলোকে ধ্বংস করে ফেলে। এ যন্ত্রে সাধারণত শীতলকারী হিসেবে তরল নাইট্রোজেন অথবা আর্গন গ্যাস ব্যবহার করা হয়। শরীরের বাইরের দিকে অবস্থিত অঙ্গের ক্ষেত্রে অত্যন্ত শীতল এ পদার্থ আক্রান্ত স্থানের কোষ কলার ওপর তুলা জড়ানো শলাকা বা স্প্রে করার কোনো যন্ত্রের সাহায্যে সরাসরি প্রয়োগ করা হয়। এ ক্ষেত্রে কখনো কখনো একটি নলের মধ্যে কার্বন ডাইঅক্সাইডের অত্যন্ত ছোট ছোট বরফের টুকরো তৈরি করে অথবা এসিটোনের সঙ্গে মিশ্রিত অবস্থায় মণ্ডের মতো তৈরি করেও ব্যবহার করা হয়ে থাকে। শরীরের অভ্যন্তরে টিউমারের ক্ষেত্রে আক্রান্ত স্থানের উপর স্থাপিত ক্রায়োপ্রোব নামক ফাঁপা নলটির মধ্য দিয়ে শীতল পদার্থ সঞ্চালিত করে চারপাশে এক-দুই ইঞ্চি পরিমাণ জায়গায় অবস্থিত সুস্থ কোষ কলাসহ টিউমারটি হিমায়িত করে তোলা হয়। তাছাড়া কখনো কখনো টিউমারের বিভিন্ন অংশের জন্য একের অধিক প্রোব ব্যবহার করা হয়। এরপর প্রোবগুলো সরিয়ে নিয়ে হিমায়িত কোষগুলো গলে যেতে দেওয়া হয়। একইভাবে কয়েকবার এ পদ্ধতির পুনরাবৃত্তি ঘটিয়ে জীবাণু ধ্বংস করা হয়। ক্যান্সার কোষকলা ধ্বংসের জন্য সাধারণত -৪০ থেকে ৫০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড তাপমাত্রা প্রয়োগ করা হয়।


ঘ) উদ্দীপকের চিকিৎসা পদ্ধতি অর্থাৎ ক্রায়োসার্জারি বিশেষ কিছু রোগীদের জন্য উপযোগী। এটি যাদের জন্য উপযোগী তা নিচে দেওয়া হলো-

১. যাদের ত্বকে ছোট টিউমার, ক্যান্সার, তিল ও আঁচিল ইত্যাদি থাকে তাদের ক্রায়োসার্জারির মাধ্যমে চিকিৎসা করা যায়।

২. ক্রায়োসার্জারির দ্বারা অভ্যন্তরীণ কিছু রোগ যেমন- লিভার ক্যান্সার, বৃক্ক ক্যান্সার, প্রস্টেট ক্যান্সার, ফুসফুস ক্যান্সার, মুখের ক্যান্সার, গ্রীবাদেশীয় গোলযোগ, পাইলস ইত্যাদি রোগীর চিকিৎসা করা হয়।

৩. Plantar Fascia ও Fibroma ইত্যাদি ক্ষেত্রেও ক্রায়োসার্জারির প্রয়োগ করা হয়।

৪. তাছাড়া যারা শারীরিকভাবে দুর্বল ও কোনোরূপ অপারেশনের ধকল সহ্য করতে পারবে না তাদের জন্য এই পদ্ধতি উপযোগী।

উপরে বর্ণিত রোগগুলোর ক্ষেত্রেই সাধারণত ক্রায়োসার্জারির চিকিৎসা প্রয়োগ করা হয়। অন্য কোনো রোগে এ চিকিৎসা উপযোগী নয়। তাই বলা যায়, ক্রায়োসার্জারি চিকিৎসা বিশেষ কিছু রোগীদের জন্য উপযোগী।


উদ্দীপকঃ-

=> সাকিব তার চাচার অফিসে গিয়ে দেখল যে, চাচার কক্ষের নির্ধারিত। স্থানে আঙুল স্পর্শ করলে দরজা খুলে যায়। সে আরও দেখতে পেল। গবেষণা কক্ষের বিশেষ স্থানে কিছুক্ষণ তাকিয়ে থাকলে দরজা খুলে যায়। সাকিবের এক প্রতিবেশী তাকে বলল যে, ত্বকের টিউমার চিকিৎসায় সে রক্তপাতহীন চিকিৎসা গ্রহণ করতে ইচ্ছুক।

 ক. কিউরিওসিটি রেভার কী?

খ. রোবট একটি প্রোগ্রাম কন্ট্রোল ডিভাইস- ব্যাখ্যা কর।

গ. উদ্দীপকের গবেষণা কক্ষে কোন প্রযুক্তি ব্যবহৃত হয়েছে? ব্যাখ্যা কর।

ঘ. উদ্দীপকে সাকিবের প্রতিবেশীর চিকিৎসা পদ্ধতি বিশ্লেষণ কর।


প্রশ্নের উত্তরঃ-


ক) কিউরিওসিটি রোভার হলো নাসা কর্তৃক মঙ্গল গ্রহে প্রেরিত রোবট মানব।


খ) রোবট হলো একটা ইলেকট্রো-যন্ত্র যার কাজকর্ম ও চলাফেরা সবই নিয়ন্ত্রন করা যায়।আবার রোবটবিজ্ঞান হচ্ছে কম্পিউটার নিয়ন্ত্রিত ও যন্ত্রসমূহ ডিজাইন ও উৎপাদন সংক্রান্ত বিজ্ঞান। যা কম্পিউটার প্রোগ্রাম বা ইলেকট্রনিক সার্কিট কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত এক ধরনের স্বয়ংক্রিয় বা আধা স্বয়ংক্রিয় করা হলে ঠিক সেই প্রোগ্রাম অনুসারে কাজ করে। রোবট স্বয়ংক্রিয় প্রোগ্রাম অনুসারে সকল কাজ করে থাকে।সুতরাং রোবট একটি প্রোগ্রাম কন্ট্রোল ডিভাইস।


গ) উদ্দীপকের গবেষণা কক্ষে যে প্রযুক্তি ব্যবহৃত হয়েছে তা হলো বায়োমেট্রিক্স এর আইরিশ বা রেটিনা স্ক্যান প্রযুক্তি। এই প্রযুক্তির মাধ্যমে কোনো বিশেষ স্থানে তাকিয়ে থাকলে দরজা খুলে যায়। আইরিশ শনাক্তকরণ পদ্ধতিতে চোখের তারার রঙিন অংশকে পরীক্ষা করা হয় এবং রেটিনা স্ক্যান পদ্ধতিতে চোখের মণিতে রক্তের লেয়ারের পরিমাণ পরিমাপ করে মানুষকে শনাক্ত করা হয়। আইরিশ বায়োমেট্রিক্স পদ্ধতিতে কোনো ব্যক্তির এক বা উভয় চোখের আইরিশ বা চোখের তারার দৃশ্যমান রঙিন অংশের ভিত্তিতে পরীক্ষা করে গাণিতিক প্যাটার্ন রিকগনিশন পদ্ধতির প্রয়োগে শনাক্তকরণ করা হয়। এ পদ্ধতিতে চোখ ও মাথাকে স্থির করে একটি ক্যামেরা সম্পন্ন ডিভাইসের সামনে দাঁড়াতে হয়। এতে প্রায় ১ থেকে ১০ সেকেন্ড সময় লাগে। আগে থেকে ধারণ করা চোখের আইরিশের প্যাটার্নের সাথে মিলিয়ে শনাক্তকরণ করা হয়।এই পদ্ধতির প্রয়োগে পাসপোর্টবিহীনভাবে এক দেশের সীমা অতিক্রম করে অন্য দেশে গমন করা যেতে পারে যা বর্তমানে ইউরোপে ব্যবহৃত হচ্ছে। এছাড়া সরকারি গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান, মিলিটারি, আর্থিক প্রতিষ্ঠান ইত্যাদিতে আইরিশ পদ্ধতি শনাক্তকরণের কাজে ব্যবহৃত হয়।


ঘ) উদ্দীপকে সাকিবের প্রতিবেশীর চিকিৎসা পদ্ধতিটি হলো ক্রায়োসার্জারি ক্রায়োসার্জারি এক ধরনের চিকিৎসা পদ্ধতি, যা অত্যধিক শীতল তাপমাত্রা প্রয়োগের মাধ্যমে ত্বকের অস্বাভাবিক বা অপ্রত্যাশিত রোগাক্রান্ত টিস্যু/ত্বক কোষ ধ্বংস করার কাজে ব্যবহৃত হয়।এই পদ্ধতির চিকিৎসায় প্রথমেই সিম্যুলেটেড সফটওয়্যার দ্বারা আক্রান্ত কোষগুলোর (যেমন- ক্যান্সার ইত্যাদি) অবস্থান ও সীমানা নির্ধারণ করা হয়। এক্ষেত্রে রোগাক্রান্ত কোষটিতে আল্ট্রা থিন সুচযুক্ত ক্রায়োপ্রোব প্রবেশ করিয়ে নির্ধারিত ক্রায়োজেনিক গ্যাস প্রয়োগ করা হয়। তাপমাত্রা অত্যধিক হ্রাসের ফলে (-৪১ থেকে ১৯৬ ডিগ্রি সেন্ট্রিগ্রেড) নির্বাচিত টিস্যুটিতে অক্সিজেন সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়। ফলে ঐ নিম্নতম তাপমাত্রায় রক্ত ও অক্সিজেন সঞ্চালন সম্ভব না হওয়ার দরুণ রোগাক্রান্ত টিস্যুর ক্ষতিসাধন হয়। ক্রায়োসার্জারি চিকিৎসায় রোগাক্রান্ত টিস্যুর ধরন অনুযায়ী এবং নির্দিষ্ট শীতলতায় পৌঁছানোর জন্য বিভিন্ন ধরনের গ্যাস যেমন- তরল নাইট্রোজেন, আর্গন, অক্সিজেন বা তরল কার্বন ডাইঅক্সাইড ব্যবহার করা হয়।অন্যান্য চিকিৎসা পদ্ধতির তুলনায় ক্যান্সার ও নিউরোসার্জারি চিকিৎসায় ক্রায়োসার্জারি অনেক সাশ্রয়ী এবং সময় কম লাগে। এ পদ্ধতিতে ব্যথা, রক্তপাত অথবা অপারেশনজনিত কাটা-ছেঁড়ার জটিলতা নেই। রোগীকে কোনো পূর্ব প্রস্তুতি নিতে হয় না এবং অনেক| ক্ষেত্রে হাসপাতাল পর্যন্তও রোগীকে নিতে হয় না।

Ask2Ans এ আপনাকে সুস্বাগতম, এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং Ask2An অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পাবেন। এখান থেকে যেমন আপনি জ্ঞান অর্জন করতে পারবেন তেমনিই এটি ব্যবহার করে আপনার জ্ঞান দিয়ে অপরকে সহায়তা করতে পারবেন। জ্ঞানার্জনের অন্যতম বাংলা প্লাটফর্ম হলো Ask2Ans, আমাদের সাথে থাকুন জ্ঞানঅর্জন করুন।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

0 টি ভোট
1 উত্তর 75 বার প্রদর্শিত
21 ফেব্রুয়ারি "পড়াশোনা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Admin (525 পয়েন্ট)
0 টি ভোট
1 উত্তর 48 বার প্রদর্শিত
17 ডিসেম্বর 2023 "পড়াশোনা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Admin (525 পয়েন্ট)
0 টি ভোট
1 উত্তর 120 বার প্রদর্শিত
0 টি ভোট
1 উত্তর 57 বার প্রদর্শিত
07 ডিসেম্বর 2023 "পড়াশোনা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Hasib (569 পয়েন্ট)
0 টি ভোট
1 উত্তর 64 বার প্রদর্শিত
03 ডিসেম্বর 2023 "পড়াশোনা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Hasib (569 পয়েন্ট)
...