আস্ক টু আন্স প্লাটফর্মে আপনাকে স্বাগতম, সমস্যার সমাধান খুঁজতে প্রশ্ন করুন।।
0 টি ভোট
61 বার প্রদর্শিত
"ইসলাম শিক্ষা" বিভাগে করেছেন (513 পয়েন্ট)

তাকরিরি হাদিস বলতে কী বোঝায়?

খাইরুন শব্দের অর্থ কী?

1 উত্তর

0 টি ভোট
করেছেন (513 পয়েন্ট)

উদ্দীপকঃ

 আশরাফ সাহেব আদর্শবান মানুষ। তিনি সমাজের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজে অবদান রাখেন। এতে তিনি সমাজে প্রশংসিত। তিনি সমামজের হত দরিদ্র মানুষের উপকার করে থাকেন এবং মাদ্রাসা, মসজিদ ও এতিম খানায় সাধ্যমত দান খয়রাত করে থাকেন। তার এমন সুন্দর কাজ দেখে সমাজের কিছু কুচক্রী মানুষ মাঝে মাঝে তার কাজে বাধার সৃষ্টি করতে চায় এবং কুৎসা রটানোর অপচেষ্টা করে। তাতেও আশরাফ সাহেব তার ভাল কাজ কর্ম থেকে বিরত থাকেন। ফলে তিনি দুনিয়াতে কিছু কষ্ট পেলেও পরকালে পুরস্কৃত হবেন।

ক. খাইরুন শব্দের অর্থ কী?

খ. তাকরিরি হাদিস বলতে কী বোঝায়?

গ. আশরাফ সাহেবের কাজ সম্পাদনে তোমার মন্তব্য লিখ।

ঘ. আশরাফ সাহেবের কাজের পরিনাম সম্পর্কে আলোচনা কর।


 প্রশ্নের উত্তর-

ক) খাইরুন শব্দের অর্থ সর্বোত্তম।


খ) তাকরিরি হাদিস বলতে রাসুল (স)-এর সম্মতিমূলক হাদিসকে বোঝায়।তাকরিরি আরবি শব্দ। এর আভিধানিক অর্থ হলো স্বীকার করা, স্বীকৃতি দেওয়া, সম্মতি প্রদান, মৌন সমর্থন করা ইত্যাদি। পরিভাষায় শরিয়তের বিধান হিসেবে সাহাবিদের যেসব কাজের প্রতি রাসুল (স) সমর্থন বা সম্মতি প্রদান করেছেন অথবা যেসব ব্যাপারে নীরবতা পালন করেছেন তাকে হাদিসে তাকরিরি বলে।


গ) আশরাফ সাহেব দরিদ্র মানুষকে, মসজিদ, মাদরাসা ও এতিম খানায় দান করার মাধ্যমে সাওয়াবের অধিকারী হবেন।মানুষের ধন-সম্পদ ও টাকা পয়সা আল্লাহরই দান। যাকে ইচ্ছা আল্লাহ তাআলা তাকে ধনী বানান। সমাজের ধনীদের উচিত দরিদ্র মানুষদের দান করা। আর এটা আল্লাহর তায়ালার নির্দেশ। আল্লাহ বলেন, আর তাদের (ধনীদের) সম্পদে অভাবী ও বঞ্চিতদের অধিকার রয়েছে: (সুরা জারিয়াত ১৯) আর আশরাফ সাহেব দানের মাধ্যমে সেই হক আদায় করছেন।উদ্দীপকের আশরাফ সাহেব একজন আদর্শবান মানুষ। তিনি সমাজের উন্নয়নে কাজ করেন। হত দরিদ্রদের দান করেন। মসজিদ, মাদরাসা ও এতিমখানায় দান করেন। মসজিদ, মাদরাসা ও এতিমখানা এগুলো ধর্মীয় ও সামাজিক প্রতিষ্ঠান। এগুলোতে দান করা সমাজের বিত্তবানদের উপর কর্তব্য। সামাজিক প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে সমাজের উন্নয়ন হয়। আর দান করার মাধ্যমে সম্পদ কমে না বরং সম্পদ বৃদ্ধি পায়। কেননা দানকারীর সম্পদে আল্লাহ তায়ালা বরকত দান করেন এবং তার সম্পদ বাড়িয়ে দেন।পরিশেষে বলা যায় আশরাফ সাহেব দান করার মাধ্যমে সওয়াবের অধিকারী হবেন।


ঘ) আশরাফ এরূপ কাজ অর্থাৎ তার দানশীলতা পরকালে তার জন্য পুরস্কার হিসেবে কাজ করবে।আল্লাহ তায়ালা একটা নির্দিষ্ট সময় বসবাসের জন্য পৃথিবীতে মানুষকে প্রেরণ করেন। নির্ধারিত এ সময়ে যে যেমন কাজ করে পরকালে সে তেমন ফল ভোগ করে। কোনো ব্যক্তি অবিরত দান করলে সে মৃত্যুর পরও সওয়াব পাবেন। আশরাফ সাহেব এলাকায় মসজিদ, ইয়াতিমখানা, প্রতিষ্ঠা করেন যা অবারিত দানের অন্তর্ভুক্ত। এই দানের কারণে তিনি মৃত্যুর পরও সওয়াব অর্জন করতে থাকবেন। সদকায়ে জারিয়া বা অবিরত দান এমন একটি দান যা দানকৃত ব্যক্তির মৃত্যুর পরও মানুষ এর দ্বারা উপকৃত হতে থাকে। এই দানের ফল দীর্ঘস্থায়ী হয়। যেমন- বিদ্যালয়, মসজিদ, ইয়াতিমখানা, হাসপাতাল, সড়ক, সেতু, বনায়ন প্রভৃতি। অর্থাৎ এসব এমন কাজ, যাকে বলা যায় সাদাকাতুন জারিয়াহ। মহানবি (স) বলেছেন- 'যে ব্যক্তি আল্লাহর জন্য মসজিদ বানাবে, আল্লাহ তার জন্য জান্নাতের মধ্যে একটি ঘর নির্মাণ করবেন' (বুখারি মুসলিম)। এমন সাদকামূলক কাজ করে গেলে মানুষ তা থেকে আবহমানকাল পর্যন্ত কবরে বসে তার সওয়াব ও পুরস্কার পেতে থাকবে। আশরাফ সাহেবও এ কাজগুলো করেন, তাই তিনিও এ. সকল কাজের সওয়াব হিসেবে পরকালে পুরস্কার প্রাপ্ত হবেন।


উদ্দীপকঃ-

 শিক্ষক জনাব আব্দুর রহিম ক্লাসে হাদিস বিষয়ে আলোচনা করছিলেন। একজন ছাত্র প্রশ্ন করল-"স্যার, পবিত্র কুরআনেই আল্লাহ সব বিষয়ে বর্ণনা করেছেন, তাহলে হাদিসের প্রয়োজন কী?" শিক্ষক বললেন, হাদিস মূলত কুরআনের ব্যাখ্যা। এটি ইসলামি শরিয়তের উৎস। হাদিস ব্যতিত পবিত্র কুরআনের মর্ম উদঘাটন এবং কুরআনের অনেক নির্দেশ পালন করা সম্ভব নয়।

ক. হাদিস শব্দের অর্থ কী?

খ. হাদিসের সনদ বলতে কী বোঝায়?

গ. পবিত্র কুরআনের নির্দেশ পালন সম্পর্কে উদ্দীপকে উল্লেখিত শাস্ত্রটির গুরুত্ব উদাহরণসহ ব্যাখ্যা কর।

ঘ. শিক্ষকের বক্তব্যের সম্পর্কে তোমার মতামত ও যুক্তি উপস্থাপন করো।


 প্রশ্নের উত্তর-

ক) হাদিস শব্দের অর্থ কথা, বাণী বা ঘটনা।


খ) হাদিস বর্ণনাকারীর সূত্রই হলো সনদ।একটি হাদিসের দুটি অংশ থাকে। প্রথমাংশকে বলা হয় সনদ বা ইসনাদ। একটি হাদিস গ্রন্থে সংকলিত হওয়ার কালে সংকলনকারী থেকে রাসুলুল্লাহ (স) পর্যন্ত অন্তর্বর্তী বর্ণনাকারীদের বণ্টন ধারার পরস্পর তাকে সনদ বা ইসনাদ বলা হয়।


গ) জনাব আব্দুর রহিমের বক্তব্যে হাদিস শাস্ত্রের পরিচয় ফুটে উঠেছে।আল হাদিস ইসলামি শরিয়তের দ্বিতীয় উৎস। আল কুরআনের মূলনীতিসমূহের বাস্তবরূপ ও ব্যাখ্যা, কুরআন মাজিদে আল্লাহ তায়ালা যে জীবনবিধান ও আদর্শ উপস্থাপন করেছেন- সাধারণ মানুষের পক্ষে সবসময় তা সহজবোধ্য নয়। যে জন্যে এ থেকে তাদের উপকৃত হওয়াও কষ্টকর। হাদিস কুরআনের বক্তব্যসমূহ সর্বসাধারণের উপযোগী করে পরিবেশন করেছে। হাদিসকে তাই বলা যায় কুরআনেরই ব্যাখ্যাগ্রন্থ। পবিত্র কুরআনের খুঁটিনাটি বিষয় একটি শাস্ত্রে সংবলিত হয়েছে, যার ওপর কুরআনের বিশ্লেষণ নির্ভরশীল। কুরআন ইসলামের মূল প্রদীপ, হাদিস তার বিচ্ছুরিত আলো। কুরআনকে যদি ইসলাম পরিকল্পিত জীবনপ্রাসাদের নকশা মনে করা যায়- তাহলে হাদিস হবে সে নকশা অনুযায়ী নির্মিত প্রাসাদ। এটি বাদ দিয়ে কুরআন অনুযায়ী আমল করা অসম্ভব। সুতরাং বলা যায় যে, আশরাফ সাহেবের বক্তব্যে হাদিস শাস্ত্রের পরিচয় ফুটে উঠেছে।


ঘ) 'হাদিসকে বাদ দিয়ে কুরআন অনুযায়ী আমল করা অসম্ভব'। ইসলামি জীবনধারায় আব্দুর রহিমের এ উক্তিটি যথার্থ।ইসলামি জীবন ব্যবস্থার মূল কেন্দ্রবিন্দু হলো কুরআন ও হাদিস। ইসলামের অপরিহার্য অংশ হলো হাদিস। মহান আল্লাহ হাদিসের অপরিহার্যতা ঘোষণা করে বলেন- 'রাসুল তোমাদের যা দেন তা তোমরা গ্রহণ করো আর তোমাদের যা নিষেধ করেন তা থেকে বিরত থাকে।' (সুরা আল-হাশর, আয়াত ৭) হেদায়েত লাভের অন্যতম মাধ্যম হলো হাদিস। যে হাদিসের নির্দেশ অনুযায়ী চলবে সে হেদায়েত লাভ করবে। ইসলামি জ্ঞান-বিজ্ঞানের অন্যতম প্রধান উৎস হলো হাদিসের জ্ঞান। মানুষ জীবনে চলার পথে বিভিন্ন ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হতেই পারে। মানুষের ব্যক্তিগত জীবন থেকে আন্তর্জাতিকভাবে উদ্ভুত সব সমস্যার সমাধান দিতে হাদিস অপরিহার্য ভূমিকা পালন করে। হাদিস মুসলমান জাতির জন্য জীবন চলার অন্যতম উপকরণ। ইসলামি জীবনধারার অন্যতম শর্ত হলো আল্লাহর বন্দেগি বা ইবাদত করা। এ ইবাদত কীভাবে করতে হবে তার পূর্ণাঙ্গ নীতিমালা প্রদান করেছে হাদিস।একজন মুসলমানের সামগ্রিক আচার-আচরণ কেমন হবে তা পরিষ্কারভাবে বর্ণনা করেছে হাদিস। আর মহানবি (স) ছিলেন পরিচ্ছন্ন আচার-আচরণের বাস্তব প্রতিকৃতি। সুতরাং ইসলামি জীবনধারায় প্রত্যেক মুসলমানের জীবনাচরণ নিয়ন্ত্রিত হবে হাদিসের আলোকে। আব্দুর রহিমের বক্তব্যে ইসলামিক জীবনব্যবস্থায় হাদিসের অপরিহার্যতা ফুটে উঠেছে। সুতরাং তার সর্বশেষ উক্তিটি যথার্থ ও তাৎপর্যপূর্ণ।

292 টি প্রশ্ন

292 টি উত্তর

1 মন্তব্য

177 জন সদস্য

Ask2Ans এ সুস্বাগতম, যেখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং গোষ্ঠীর অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

0 টি ভোট
1 উত্তর 44 বার প্রদর্শিত
21 ডিসেম্বর 2023 "ইসলাম শিক্ষা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Admin (513 পয়েন্ট)
0 টি ভোট
1 উত্তর 71 বার প্রদর্শিত
0 টি ভোট
1 উত্তর 89 বার প্রদর্শিত
14 ফেব্রুয়ারি "পড়াশোনা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Admin (513 পয়েন্ট)
0 টি ভোট
1 উত্তর 11 বার প্রদর্শিত
02 জানুয়ারি "পড়াশোনা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Admin (513 পয়েন্ট)
0 টি ভোট
1 উত্তর 48 বার প্রদর্শিত
21 জানুয়ারি "ইসলাম শিক্ষা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Admin (513 পয়েন্ট)
...