আস্ক টু আন্স প্লাটফর্মে আপনাকে স্বাগতম, সমস্যার সমাধান খুঁজতে প্রশ্ন করুন।।
0 টি ভোট
54 বার প্রদর্শিত
"পড়াশোনা" বিভাগে করেছেন (513 পয়েন্ট)

الم শব্দের অর্থ কী?

1 উত্তর

0 টি ভোট
করেছেন (513 পয়েন্ট)

উদ্দীপকঃ-

=> অবস্থা, ঘটনা ও প্রেক্ষাপটের ভিত্তিতে কখনও পবিত্র কুরআনের সুরাসমূহ সংক্ষিপ্ত অথচ শরিয়তের মৌলিক বিষয়াবলি সম্পর্কে এবং অপরদিকে কখনও দীর্ঘ এবং শরিয়তের বিধি-বিধান সম্পর্কে আয়াতসমূহ নাজিল হতো।

প্রশ্ন-

ক. الم শব্দের অর্থ কী?

গ. সংক্ষিপ্ত অথচ ইসলামের মৌলিক বিষয়-কোন সুরার প্রতি ইঙ্গিত করা হয়েছে? তা ব্যাখ্যা করো।

ঘ. শরিয়তের বিধি-বিধান সম্পর্কিত আয়াতসমূহ বিশ্লেষণপূর্বক তার প্রভাব আলোচনা করো।

প্রশ্নের উত্তরঃ- 

ক) উপরোক্ত শব্দের অর্থ হচ্ছে আল্লাহ ছাড়া কেউ জানেন না।

গ) সংক্ষিপ্ত অথচ ইসলামের মৌলিক বিষয় দ্বারা এখানে মক্কি সুরার প্রতি ইঙ্গিত করা হয়েছে।

সাধারণত মহানবি (স)-এর মদিনায় হিজরতের পূর্বে যেসব সুরা নাজিল হয়েছে সেগুলো মক্কি সুরা। যেহেতু মক্কি সুরাগুলো ইসলামের প্রথম দিকের সুরা, তাই এখানে মানুষকে আহ্বান করা হয়েছে ইমান ও তাওহিদের দিকে। মানুষকে পরিচিত করা হয়েছে শিরক ও কুফর সম্পর্কে। তাদের অবহিত করা হয়েছে আখিরাত, কবর, হাসর, জান্নাত ও জাহান্নাম সম্পর্কে। আর এগুলো সবই হলো শরিয়তের মৌলিক বিষয়। যা উদ্দীপকেও বলা হয়েছে। উদ্দীপকে কিছু সুরার বৈশিষ্ট্য বর্ণনা এভাবে করা হয়েছে যে, সুরাগুলো সংক্ষিপ্ত এবং শরিয়তের মৌলিক বিষয় সম্পর্কে নাজিল করা হয়েছে। এ বৈশিষ্ট্য দ্বারা মূলত মক্কি সুরার প্রতিই ইঙ্গিত করা হয়েছে। কারণ শরিয়তের মৌলিক বিষয় হলো- তাওহিদ, রিসালাত, আখিরাত, তাকওয়া, জান্নাত, জাহান্নাম ইত্যাদি। আর এগুলোর বর্ণনা এসেছে রাসুল (স) এর হিজরতের পূর্বে নাজিলকৃত সুরাসমূহে। যা মক্কি সুরা হিসেবে পরিচিত। সুতরাং 'সংক্ষিপ্ত অথচ ইসলামের মৌলিক বিষয়'- কথাটি দ্বারা মক্কি সুরার প্রতিই ইঙ্গিত করা হয়েছে।

ঘ) শরিয়তের বিধি-বিধান সম্পর্কিত আয়াতসমূহ মাদানি সুরায় পাওয়া যায়।

মহানবি (স) এর মদিনায় হিজরতের পর নাজিলকৃত সুরাসমূহকে মাদানি সুরা বলা হয়। এ সুরাসমূহে রয়েছে বাস্তবজীবন পরিচালনার সুষ্ঠু বিধি- বিধান। ব্যাবহারিক আইন, ক্রয়-বিক্রয় সম্পর্কিত বিষয়, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ইত্যাদি ক্ষেত্রে ধর্মীয় আদর্শ ও নীতিমালা প্রয়োগের স্পষ্ট নির্দেশনা রয়েছে এই সুরাসমূহে। তাই বাস্তবজীবন পরিচালনার ক্ষেত্রে মাদানি সুরার নীতিমালা ও শিক্ষা ইতিবাচক প্রভাব ফেলে। মাদানি সুরাগুলো হলো বিশ্বাস বা ইমান আনার পর আমলের দিক। এ জন্যই আমরা মাদানি সুরার মধ্যে দেখতে পাই এসব সুরায় ইবাদতের প্রতি গুরুত্বারোপ করা হয়েছে। এছাড়া আহকামে শরিয়া, হালাল, হারাম ও ইসলামি রীতিনীতিরও বিশদ বর্ণনা রয়েছে এখানে। ইসলামে বিবাহ, সামাজিক মেলামেশার রীতিনীতির বর্ণনা, ইসলামের ব্যক্তিগত, পারিবারিক, সামাজিক, জাতীয়, আন্তর্জাতিক, শিক্ষা-সাংস্কৃতিক ও ধর্মীয় নীতি, আদর্শ পদ্ধতির বর্ণনা রয়েছে এ সুরাসমূহে। দৈনন্দিন লেনদেন, উত্তরাধিকার আইন, যুদ্ধরীতি, জিহাদ ইত্যাদির বর্ণনা, ইহুদি ও মুনাফিকদের ষড়যন্ত্র, ইসলামি রাষ্ট্রে অমুসলিম নাগরিকদের আচরণবিধি ও তাদের অধিকারের নীতিমালা প্রণয়ন ইত্যাদি সবকিছুই মাদানি সুরাসমূহে পাওয়া যায়। আমাদের দৈনন্দিন জীবন পরিচালনার ক্ষেত্রে উল্লিখিত বিষয়গুলো সবারই জানা থাকতে হয়। আর এ বিষয়গুলোকে পরিচালনা করার সুষ্ঠু বিধি-বিধান মাদানি সুরায় প্রণয়ন করা হয়েছে। তাই আমাদের উচিত সুন্দর জীবন পরিচালনার ক্ষেত্রে মাদানি সুরার বিধি-বিধান ও দিকনির্দেশনা বাস্তবে প্রয়োগ করা।

Ask2Ans এ সুস্বাগতম, যেখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং গোষ্ঠীর অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

0 টি ভোট
1 উত্তর 23 বার প্রদর্শিত
29 নভেম্বর 2023 "ইসলাম শিক্ষা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Admin (513 পয়েন্ট)
0 টি ভোট
1 উত্তর 34 বার প্রদর্শিত
17 ডিসেম্বর 2023 "শব্দের অর্থ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Hasib (573 পয়েন্ট)
0 টি ভোট
1 উত্তর 48 বার প্রদর্শিত
16 ডিসেম্বর 2023 "শব্দের অর্থ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Hasib (573 পয়েন্ট)
–1 টি ভোট
1 উত্তর 31 বার প্রদর্শিত
15 ডিসেম্বর 2023 "শব্দের অর্থ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Hasib (573 পয়েন্ট)
0 টি ভোট
1 উত্তর 49 বার প্রদর্শিত
15 ডিসেম্বর 2023 "শব্দের অর্থ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Hasib (573 পয়েন্ট)
...